আইফোন বিক্রয় কমছে

0
212

মার্কেট রিসার্চ ফার্ম গার্টনারের গবেষণা অনুযায়ী জানা গেছে যে, এ্যাপল এর নতুন আইফোন গুলোর হলিডে সিজনের বিক্রয় মন্থর হয়ে আছে। রিপোর্ট টির কার্যক্রম শুরু হয়েছে ২০১৮ সালের চতুর্থ কোটায়। রিপোর্টে জানা যায়, ২০১৮ সালে গ্লোবাল সিপমেন্ট ০.১% হারে কিছুটা বৃদ্ধি পেয়েছে যেটি ৪০৮.৪ মিলিয়ন ইউনিট। কিন্তু চতুর্থ কোটায় কোম্পানিটির বিক্রয় হয়েছে ৬৪.৫ মিলিয়ন ইউনিট। যা বাৎসরিক বিক্রয়ের চেয়ে ১১.৮% কম। একইভাবে ২০১৬ সবচেয়ে কম বিক্র‍য়ের হারে পৌছে ছিল কোম্পানিটি।

এই দুই সংখ্যার হার হ্রাস বছরের সবচেয়ে সেরা হ্রাসে পরিনত হয়েছে যা একরকম রেকর্ড বটে। নর্থ আমেরিকা ও বৃহত্তর এশিয়াতে আইফোনের বিক্রয় এবং চাহিদা দিনের পর দিন কমছে। এশিয়ার মধ্যে চীনে আইফোনের চাহিদা সবচেয়ে বেশি পরিমাণে হ্রাস পেয়েছে। ২০১৮ সালের চতুর্থ কোটায় এটি হ্রাস পেয়েছে ৮.৮%। একই ভাবে ২০১৭ সালেও চীনে ১৪.৪ শতাংশ হ্রাস পেয়েছিল।

স্যামসাং ইলেকট্রনিকস ৭০.৮ মিলিয়ন ইউনিট বিক্রয় করেছে এই গত ২০১৮ সালের চতুর্থ কোটায়। বাজার শেয়ারের ১৭.৩ শতাংশ শেয়ার নিয়ে বাজারের শীর্ষ স্থান দখল করে আছে। যা তার পূর্ববর্তী ১৮.২ শতাংশের কম। দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে এ্যাপল ও তৃতীয় অবস্থানে আছে হুয়াওয়ে। যথাক্রমে তাদের মার্কেট শেয়ার ১৫.৮ শতাংশ এবং ১৪.৮ শতাংশ। ২০১৮ সালের চতুর্থ কোটায় হুয়াওয়ে ৩৭.৭ শতাংশ বিক্রয় বৃদ্ধির মাধ্যমে প্রায় ৬০ মিলিয়ন ইউনিট বিক্রয় করেছে। চতুর্থ কোটায় চতুর্থ অবস্থানে রয়েছে অপ্পো। তারা ৩১. ৬ মিলিয়ন ইউনিট ফোন বিক্রয় করেছে। তাদের মার্কেট শেয়ার বৃদ্ধি পেয়েছে ৭.৭%। পঞ্চম অবস্থানে আছে শাওমি। তারা ২৭.৪ মিলিয়ন ইউনিট ফোন বিক্রয় করেছে। তাদের মার্কেট শেয়ার বৃদ্ধির হার ৬.৮ শতাংশ।

আমাদের ৩ লক্ষ্যাধিক মেম্বারে ফেসবুক গ্রুপে জয়েন করুন
আমাদের ফেসবুক পেজটি দেখে আসুন
আমাদের YouTube Channel টিতে Subscribe করুন

Facebook Comments

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here